শীতকালেও আপনার ত্বক থাকবে সুস্থ আর উজ্জ্বল; যদি আপনার সপ্তাহে তিন দিন এই কাজগুলো করতে পারেন।

মেয়েরা নিজেদের সৌন্দর্য নিয়ে সচেতন থাকবে সে’টাই স্বাভাবিক আর সেই কারণেই তাঁদের প্রায়শই ছুটতে হয় পার্লারের দিকে। বিশেষত শীতের দিনগুলোয় মেয়েদের চিন্তা আরও বেড়ে যায় কারণ এই সময় স্কিন হয়ে ওঠে অতিরিক্ত খসখসে, নিষ্প্রাণ এবং শুষ্ক। কিন্তু আপনি জানেন কি এমন বেশ কিছু প্রাকৃতিক এবং ঘরোয়া উপকরণ রয়েছে যে’গুলো ব্যবহার করলে সহজেই আপনার ত্বকের জেল্লা ফেরত আসবে আর আপনি আগের মতই সুন্দর হয়ে উঠবেন?

নিচে এমন কিছু উপকরণ ও টিপস দেওয়া রইল যে’গুলো ব্যবহার করলে আপনি শীতকালেও নিজের ত্বকের উজ্জ্বলতা এবং সৌন্দর্য  বজায় রাখতে পারবেন:

মধু।

মধু আপনার মুখের ত্বকের জন্য প্রায় টনিকের কাজ করে কারণ মধুতে রয়েছে ময়শ্চার অ্যাবজর্ব করার ক্ষমতা। এর ফলে ময়শ্চারাইজার আপনার ত্বকের ভিতরের লেয়ারের গভীরে পৌঁছতে পারে যার ফলে আপনার স্কিন হয়ে ওঠে ফ্রেশ। তাছাড়া মধুর ব্যবহারে বাড়তি ন্যাচুরাল মশ্চারাইজার পাওয়া যায় বলে ত্বক বেশি সময় পর্যন্ত হাইড্রেটেড থাকে। অতএব নিজের মুখ ভালো করে ধুয়ে, শুকনো কাপড়ে পুছে নিয়ে মুখে একটা পাতলা লেয়ারে মধু লাগিয়ে নিন। তার কুড়ি মিনিট পরে উষ্ণ গরম জলে নিজের মুখ ধুয়ে নিন।

কমলালেবু।

শীতের সময় কমলালেবুর খোসার সাহায্যে আপনি আপনার শুকনো ও নিষ্প্রাণ ত্বককে জেল্লাদার  করে তুলতে পারেন। কারণ কমলালেবুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি যা আপনার ত্বকের জন্য অত্যন্ত উপকারী। কমলালেবুর খোসা আপনার ত্বকের জেল্লা ফিরিয়ে আনতে খুবই কার্যকরী হতে পারে। এ’র প্যাক বানাতে হলে আপনি কমলালেবুর খোসা, মধু আর লেবুর রস নিয়ে ভালো করে মিক্স করে নিন। সেই প্যাক নিজের মুখে ভালো করে লাগিয়ে আধ ঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন। আপনি নিশ্চিত ভাবেই এর প্রভাব স্পষ্ট ভাবে বুঝতে পারবেন।

বিটরুট।

ত্বককে উজ্জ্বল করে তুলতে বিটরুট হল এক আদর্শ প্রাকৃতিক উপায়। বিটরুটের কিছু টুকরো কেটে রস বের করে তা’তে অল্প গ্লিসারিন মিশিয়ে নিন। তারপর সেই মিক্সচারকে নিজের গালে লাগান। কিছুদিনের মধ্যেই আপনি আপনার মুখে উজ্জ্বল আভা দেখতে পারবেন।

লেবু আর দুধ।

লেবুর রস আর দুধ ভালো ভাবে মিশিয়ে নিয়ে নিজের মুখ মালিশ করুন। এ’তে আপনার মুখের ব্লাড সার্কুলেশন আরও ভালো ভাবে হবে আর চেহারায় আসবে সেই অভিপ্রেত ‘গ্লো’।

স্ক্রাব করাও জরুরী।

ত্বকের স্বাস্থ্যের জন্য সপ্তাহে অন্তত দু’বার স্ক্রাব করা উচিৎ। স্ক্রাবিং করার ফলে আপনার ত্বকের ডেড সেল্‌স ঝরে যায়। তাছাড়া এ’তে ব্রণর সমস্যাও দূর হবে। তবে অতিরিক্ত কড়া ভাবে স্ক্রাব করবেন না যেন। তা’তে বরং উলটে আপনার ত্বকের ক্ষতি হতে পারে।

তরল পদার্থ সেবন করুন।

ত্বকের স্বাস্থ্যের জন্য ত্বককে ময়শ্চারাইজড রাখা অত্যন্ত জরুরী আর তার জন্য দরকারি হল নিজেকে হাইড্রেটেড রাখা। দিনে অন্তত দশ থেকে বারো গ্লাস জল খাওয়া উচিৎ। এর পাশাপাশি আপনি জুস, স্যুপ ইত্যাদি খেতেই পারেন। এ’তে আপনার ত্বক উজ্জ্বল থাকবে।

এ’ছাড়া আপনার প্রতিদিনের ডায়েটে যথেষ্ট পরিমাণে শাকসবজি থাকা উচিৎ কারণ ত্বকের স্বাস্থ্যের জন্য সবুজ শাকপাতা বেশ কার্যকরী।

 

Translated by Tanmay Mukherjee

loader