নিজের পুরনো সিল্কের শাড়ি ব্যবহার করে বানিয়ে নিন ঘর সাজানোর ৬টা চমৎকার জিনিস।

অনেক সময় আপনার পুরনো সিল্কের শাড়িগুলো না পরে পরে নষ্ট হয়ে যায়, ফেটে যেতে শুরু করে। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই মহিলারা সেই সব শাড়ি কেটে কুর্তা বানিয়ে পরে ফেলেন। কিন্তু সেই সব শাড়ি দিয়ে ঘরের কিছু জরুরী জিনিসপত্রও বানিয়ে নেওয়া সম্ভব। এই প্রবন্ধে দেওয়ার রইল এমন কিছু টিপস যার মাধ্যমে আপনি নিজের পুরনো শাড়িকে ব্যবহার করে নিজের ঘরের সাজানোর কিছু দরকারি জিনিস বানিয়ে ফেলতে পারবেন:

কুশন।

যদি আপনার কাছে প্লেন বর্ডারের শাড়ি থাকে তবে তা দিয়ে চমৎকার কুশন বানিয়ে নেওয়া যেতে পারে। আর এমন ভাবে বানানো কুশন দেখতে কিন্তু বেশ সুন্দর হয়। যদি আপনি পুরনো শাড়ি থেকে কুর্তাও বানান, সে ক্ষেত্রেও শাড়ির আঁচলের অংশটা পড়ে থাকে; সে’টুকুও আপনি কুশনের জন্য ব্যবহার করতে পারেন।  

বেড কভার।

যদি আপনার কাছে কোনও উজ্জ্বল রঙের সিল্কের শাড়ি পড়ে থাকে যে’টা আপনি আর পরতে চান না, তা’হলে তা দিয়ে আপনি সহজেই বানিয়ে নিতে পারেন বেড কভার। সে’টা আপনার বিছানায় দেখতে বেশ ঝলমলে আর সুন্দর হবে।

জানালার পর্দা।

আপনার পুরনো শাড়ির রঙ যদি আপনার ঘরের রঙের সঙ্গে ম্যাচ করে, তাহলে আপনি সেই শাড়ি দিয়ে ঘরের জানালার পর্দা বানিয়ে ফেলতে পারেন। এ’টা দেখতে বেশ রঙচঙে আর সুন্দর হবে। আর এই পর্দাগুলো আপনি যে কোন উৎসবের দিনে বা বাড়িতে যে কোনও বিশেষ দিনে ব্যবহার করতে পারেন।

পুটুলি।

বাড়িতে পুরনো সিল্কের শাড়ি পড়ে থাকলে তা দিয়ে আপনি এই ধরণের পুটুলি বানিয়ে ফেলতে পারেন। আর এই পুটুলিগুলোকে আপনি নিজের পোশাকের সঙ্গে ম্যাচ করে নিশ্চিন্তে ব্যবহার করতে পারেন।

টেবিল ম্যাটস।

বাড়িতে পড়ে থাকা পুরনো সিল্কের শাড়ি দিয়ে আপনি বানিয়ে নিতে পারেন টেবিল ম্যাটস। পুরনো শাড়ি দিয়ে ভালো ভাবে টেবিল ম্যাটস বানানো হলে দেখতে বেশ ভালো লাগবে।

বালিশ বা পাশবালিশের ওয়াড়।

 

বালিশ বা পাশবালিশের শৌখিন ওয়াড় বানাতেও আপনি নিজের পুরনো শাড়ির ব্যবহার করতে পারেন।

আশা করি এই টিপসগুলোর মাধ্যমে আপনি আপনার পুরনো শাড়িগুলোর সদ্ব্যবহার করতে পারবেন।

 

Translated by Tanmay Mukherjee

loader