নিজের বিয়ের পুরনো লেহেঙ্গাকে এইভাবে ব্যবহার করুন!

বিয়েতে কনের যাবতীয় পোশাকের মধ্যে সবচেয়ে বেশি খরচ হয় লেহেঙ্গার জন্য। আজ্ঞে হ্যাঁ, এই একটা পোশাক যে'টা কেনার সময় মেয়েরা সমস্ত বাজেটের চিন্তা ভুলে দেদার খরচ করে ফেলে। কারণ বিয়ের দিনটায় সব মেয়েরাই নিজেদের নিখুঁত সাজে সাজিয়ে তুলতে চান। কিন্তু এত দাম দিয়ে কেনা লেহেঙ্গা বিয়ের পর আপনার ওয়ারড্রবের এক কোণে পড়ে থাকে এবং দ্বিতীয় বার আর পরার সুযোগ ঘটে না। তবে আপনার পুরনো লেহেঙ্গাকে চমৎকার ভাবে রিসাইকেল করা অবশ্যই সম্ভব। কী ভাবে? তুলে ধরা হল এই প্রবন্ধে।   

দোপাট্টাকে বিভিন্ন স্টাইলে ব্যবহার করুন।

আপনার লেহেঙ্গা যে রঙেরই হোক না কেন, দোপাট্টাটা আপনি নিজের ইচ্ছে মত অন্যান্য কাপড়ের সঙ্গে পেয়ার করে পরতেই পারেন। দোপাট্টা ব্যবহার করুন স্ট্রেট ফিট হওয়া স্যুটের সঙ্গে, অনারকলির সঙ্গে বা পটিয়ালা সলওয়ার কামিজের সঙ্গেও পরতে পারেন। আপনার বিয়ের দোপাট্টা যদি নেট বা টিসুর হয়, তা'হলে সে'টাকে আপনি সিল্কের সুট বা ভেলভেট অনারকলির সঙ্গে পরে দেখতে পারেন। আর আপনার দোপাট্টা যদি জর্জেটের হয় তা'হলে সে'টাকে ক্রেপ বা কটন সালোয়ার কামিজের সঙ্গে বেশি মানাবে।

চোলিকে ব্লাউজ হিসেবে ব্যবহার করুন।

বিয়ের লেহেঙ্গার চোলির সঙ্গে বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট আপনি করতে পারেন। চোলিকে শাড়ির সঙ্গে ব্যবহার করতে পারেন। এমন আপনার কাছে যদি এমব্রয়ডারি করা ক্রেপ চোলি থাকে তা'হলে সে'টাকে সিম্পল ক্রেপ শাড়ির সঙ্গে পেয়ার করে পরতে পারেন। চোলি ভেলভেটের হলে সে'টাকে পরতে পারেন নেটের বা ভেলভেটের শাড়ির সঙ্গে। সঠিক শাড়ির সঙ্গে পেয়ার করে পরলে কেউ বুঝতেও পারবেন না যে আপনি ব্লাউজের বদলে বিয়ের লেহেঙ্গার চোলি পরেছেন। বন্ধুর বিয়ে বা অন্য কোন অনুষ্ঠানে যেতে হলে নিজের জন্য একটা সিম্পল লেহেঙ্গা কিনে সে'টার সঙ্গে বিয়ের দোপাট্টা আর চোলিও পরতে পারেন। এ'তে আপনার খরচও কমবে আর বিয়ের লেহেঙ্গাও খানিকটা ব্যবহার হবে।

অন্য ভাবে ড্রেপ করুন।

ফ্যাশন মানেই এক্সপেরিমেন্টের মাধ্যমে এমন একটা স্টাইল স্টেটমেন্ট তুলে ধরা যা সকলকে চমকে দেবে। কাজেই নিজের ক্রিয়েটিভ আইডিয়াগুলোকে ব্যবহার করে নিজের জন্য খুঁজে নিন নতুন লুক। নিজের লেহেঙ্গাকে বিভিন্ন স্টাইলে ড্রেপ করুন; যেমন শাড়ি স্টাইল, গুজরাতি লেহেঙ্গা স্টাইল বা রিস্ট স্টাইল ( যে'খানে দোপাট্টার এক কোণা আপনার রিস্টের সঙ্গে বাঁধা থাকবে)। চাইলে একটা অন্য কন্ট্রাস্টিং দোপাট্টাও নিজের লেহেঙ্গার সঙ্গে ব্যবহার করতে পারেন।

এক্সপেরিমেন্ট করুন।

ভেবে দেখুন কত কিছু ভেবে আপনি বিয়ের আগে নিজের জন্য লেহেঙ্গা কেনেন; রঙ, ডিজাইন, এমবেলিশমেন্ট, আরও কত কী। এত খেটেখুটে কেনা লেহেঙ্গা মাত্র একবার পরেই ফেলে রাখার কোনও মানে হয় না। নিজেকে নতুন 'লুক'য়ে তুলে ধরতে নিজের হেভি লেহেঙ্গাকে কর্সেটের সঙ্গে পরতে পারেন। আপনার ভারি লেহেঙ্গার সঙ্গে কর্সেট বেশ মানানসই হবে। এ'ছাড়া এ'টা আপনি একটা শিয়র জ্যাকেটের সঙ্গে পরতে পারেন। এই বছর ফ্যাশনের দুনিয়ায় ব্রাইডাল উইয়ারের দেখা গেছে যে অনেকে র‍্যাম্পে হেঁটেছেন জ্যাকেট লেহেঙ্গা পরে। নতুন জ্যাকেট লেহেঙ্গা কেনার বদলে আপনার বিয়ের লেহেঙ্গাতে নিজের পছন্দের ফেব্রিক আর এম্ব্রয়ডারির যোগ করে নিজেই ডিজাইন করে নিন জ্যাকেট লেহেঙ্গা।।

লেহেঙ্গাকে অনারকলি বানিয়ে নিন।

ভালো টেলরের হদিশ জানা আছে? তাহলে সহজেই নিজের লেহেঙ্গা বা চোলিকে (ব্লাউজকে) অনারকলিতে পরিণত করতে পারেন। ওপরের অংশের জন্য সিম্পল কাপড় বেছে নিয়ে সে'টাকে নিজের লেহেঙ্গার সঙ্গে জুড়ে নিতে পারেন। ঠিক তেমন ভাবেই যদি নিজের চোলিকে অনারকলি বানিয়ে ফেলতে চান তাহলে নিচের অংশের জন্য কোন ভালো কাপড় খুঁজে স্টাইল অনুযায়ী জুড়ে নিন।

 

Translated by Tanmay Mukherjee

loader